ডিজিটাল মার্কেটিং এ আয় কেমন? অনলাইনে ইনকাম ২০২২

ডিজিটাল মার্কেটিং এ আয় কেমন?: শুরুর কথা

বন্ধুরা! কেমন আছেন? আজকে আমরা কথা বলবো ডিজিটাল মার্কেটিং এ আয় কেমন? এবং অনলাইনে ইনকাম ২০২২ নিয়ে। বর্তমানে তরুণদের মনে জেগে উঠা একটা কমন ও গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন হলো ডিজিটাল মার্কেটিং এ আয় কেমন? তো আমাদের আজকের আলোচনায় আমরা এই প্রশ্নের উত্তর টি কাভার করার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ্‌…

বর্তমান বিশ্বে বহুল আলোচিত এই ডিজিটাল মার্কেটিং এ আয় কেমন? এবং ডিজিটাল মার্কেটিং এ ক্যারিয়ার গঠন। বিশেষ করে, তরুণদের আগ্রহ সর্বাপেক্ষা বেশি ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়েই। । অনেকেই ক্যারিয়ারের প্রথম চয়েস হিসেবে ডিজিটাল মার্কেটিং বেছে নিতে চান। এবং ডিজিটাল মার্কেটিং থেকে উপার্জন সম্ভব!

digital-marketing-income-make-money-online

ডিজিটাল মার্কেটিং এ আয় কেমন? নিয়ে আপনাদের মনের সকল জল্পনাকল্পনার অবশান করতে আমাদের আজকের এই আর্টিকেল।

অনলাইনে ইনকাম ২০২২

অনলাইনে ইনকাম করার কথা বলতে গেলেই সবার আগে চলে আসে ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে আয় রোজগার এর কথা। অনলাইনে ইনকাম করার জন্য যদিও অনেক উপ্যা আছে কিন্তু ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে অনলাইনে ইনকাম কিছুটা সহজ বিধায় সবার বেশি আগ্রহ থাকে ডিজিটাল মার্কেটিং এর প্রতি। ২০২২ সালে আপনি অনলাইনে ইনকাম করার চিন্তা ভাবনা করে থাকলে নেমে পড়ুন ডিজিটাল মার্কেটিং এ স্কিল ডেভেলপমেন্ট এ।

ডিজিটাল মার্কেটিং মানে কি? What Is Digital Marketing In Bangla?

আমরা সবাই কম বেশি ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে জানি। যদিও এটি প্রচলিত মার্কেটিং ব্যবস্থার সম্পূর্ণ বিপরীত। এই ডিজিটাল মার্কেটিং খুব সাধারণ ভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং কে সজ্ঞায়িত করলে দাঁড়ায়। কোন ব্যাবসা বা প্রতিষ্ঠানের পণ্য/শেয়ার অনলাইন ভিত্তিক প্রচার ও প্রসারকে ডিজিটাল মার্কেটিং [Digital Marketing In Bangla] বলে।

এই প্রচার ও প্রাসার এর কাজটি করতে যে মাধ্যমগুলো একজন ডিজিটাল মার্কেটার ব্যবহার করে থাকে সেগুলো হলো :

  • ১. সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।
  • ২.ইমেইল মার্কেটিং মাধ্যম।
  • ৩.গুগল মার্কেটিং মাধ্যম। এবং
  • ৪.সার্চ ইন্জিন অপটিমাইজেশন এর মাধ্যমে।

উপরে আমরা কেবল গুটি কয়েক ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যম এর কথা বলেছি। এগুলো ছাড়াও আরো অনেক মাধ্যম আছে।

ডিজিটাল মার্কেটিং এ আয় কেমন?

আসলে কেউ সঠিকভাবে কখনো বলতে পারবে না ডিজিটাল মার্কেটিং এ আয় কেমন?। কেননা ডিজিটাল মার্কেটিং করে আয় সুনির্দিষ্ট নয়। আবার স্থিরও নয়। অর্থাৎ একজন ডিজিটাল মার্কেটার চাইলে যত খুশি আয় করতে পারে তার প্রফেশনাল স্কিল ও অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে। শুনে হয়তো অনেকে ভাবছেন, আমিও ডিজিটাল মার্কেটিং শিখবো,যত খুশি ইনকাম করবো। আপনার আগ্রহকে আমি অভিনন্দন জানাই, তবে একটি বিষয়ে সম্পূর্ণ না জেনে সেই সেক্টরে প্রবেশ করলে অযথা সময় নষ্ট হবে বলে আমি মনে করি। আয় তখনই হবে যখন আপনি সে বিষয়ে পারদর্শী হবেন।

শুধুমাত্র ডিজিটাল মার্কেটিং এর ক্ষেত্রেই নয়। ভাল ইনকাম করতে হলে আপনাকে স্মার্ট পদ্ধতি এপ্লাই করতে হবে। কেননা কঠোর পরিশ্রম করে সফলতা নাও আসতে পারে কিন্তু স্মার্টওয়েতে কাজ করলে দ্রুত সফল হওয়া যায়।

স্মার্টওয়েতে কাজ এর সফলতা নিয়ে নিচে একটি ছবি দিয়েছি। [work smart not work hard quotes]

work-smart-not-work-hard-quotes

মূলত, আপনি যদি ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে আপনার ক্যারিয়ার করাতে চান। তাহলে একজনের সফল ফ্রিল্যান্সারদের অতীতের অনেক পরিশ্রম এর জীবনী থাকে। তারা দিনরাত পরিশ্রম করে একজন সফল ফ্রিল্যান্সার হয় এবং মাসে মাসে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করে। তাই আপনি যদি ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে কাজ করতে চান। তাহলে আপনাকে অনেক বেশি পরিশ্রম করতে হবে এবং কাজ শেখার পাশাপাশি কাজগুলো অনুধাবন করতে হবে।

ডিজিটাল মার্কেটিং করে আয়

শুরুতেই বলে দিয়েছি একজন ডিজিটাল মার্কেটার এর আয় রোজগার নির্ভর করে স্কিল আর অভিজ্ঞতার উপর। ডিজিটাল মার্কেটিং করে আয় করতে হলে প্রচলিত মার্কেটিং ধ্যান ধারণার বাহিরে এসে ডিজিটাল মার্কেটিং মাধ্যম গুলোতে আমাদের ফোকাস করে নিজের প্রোফাইল, পোর্টফোলিও মজবুত করতে হবে। অনলাইনে নিজের একটি পরিচিতি দাঁড় করাতে হবে। তবেই ডিজিটাল মার্কেটিং এ সুনিশ্চিত ভবিষ্যৎ গড়ে আয় করা সম্ভব।

আপনারা জেনে হয়তো নির্ভরতা পাবেন, ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে অর্থ উপার্জনের জন্য আপনার প্রথম ধাপ হবে খুবই সহজ। আপনার অভিজ্ঞতা অনুযায়ী যদি আপনার পোর্টফোলিও সঠিক হয় এক্ষেত্রে আপনার কোন ভাইবা বা লিখিত দিতে হবে না। বিষয়টা আপনার কাছে ছোট মনে হলে ও এটাই সত্যি। তারপরে ও অনেকে জানতে চান, ডিজিটাল মার্কেটিং করে আয় উপার্জন কি এটা আদৌ সম্ভব? এই ধরনের প্রশ্ন থাকাটা অস্বাভাবিক কিছুই না।

কিভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং থেকে উপার্জন সম্ভব?

ডিজিটাল মার্কেটিং এর উদ্দেশ্যেই হচ্ছে অনলাইনে সেবা/পণ্যের প্রচার ও প্রসারের কাজটি করা এবং এই কাজটি করতে ঢাল হিসেবে কাজ করে একজন ডিজিটাল মার্কেটার। আলোচনার শুরুতেই বলেছি একজন ডিজিটাল মার্কেটার এই ডিজিটাল মার্কেটিং এর কাজটি কিছু মাধ্যমে অনুসরণ করে থাকে। উল্লেখিত মাধ্যম গুলোর যেকোন একটিতে দক্ষতা বাড়িয়ে ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপার্জনের রাস্তাটি বের করে নেওয়া আমাদের উপর নির্ভর করে।

  • ১. সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।
  • ২.ইমেইল মার্কেটিং মাধ্যম।
  • ৩.গুগল মার্কেটিং মাধ্যম। এবং
  • ৪.সার্চ ইন্জিন অপটিমাইজেশন এর মাধ্যমে।

আপনার যদি আগ্রহের নির্দিষ্ট বিভাগগুলি বেছে নিয়ে আপনার দক্ষতা বা স্কিল অর্জন করেন তবে আপনাকে উপার্জনের ইনকাম নিয়ে চিন্তা করতে হবে না । সর্বনিম্ন মাসে আপনার ১৫+ হাজার ইনকাম হবে।

অপর দিকে, আপনি যদি ডিজিটাল মার্কেটিং এর সমস্ত ক্যাটাগরি, আপনার নিজের মধ্যে আয়ত্ত করে নিতে পারেন। এবং প্রতিনিয়ত অনুশীলন এবং ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস গুলোতে আপনার কাজের পোর্টফোলিও তৈরি করতে পারেন। তাহলে একটা সময় গিয়ে আপনি যখন মোটামোটি সফল হবেন তখন সর্বনিম্ন আপনার মাসে ৩০ হাজার টাকা ইনকাম হবে। যা সফল ডিজিটাল মার্কেটার বর্তমানে ৫০ হাজার থেকে ১ লাখের এর উপরে ইনকাম করছেন।

ডিজিটাল মার্কেটিং করে মাসে কত টাকা আয় করা যায়?

এ কথা বলা বাহুল্য প্রচারণার কাজটি যদি আপনার হয় এবং মার্কেটিং টি যদি আপনি নিজেই করেন তাহলে আয়ের পরিমাণ ২ গুণ। তবে আপনি যদি একজন এক্সপার্ট লেভেলের ডিজিটাল মার্কেটার হয়ে থাকেন আপনার মাসিক ইনকাম মাসে ১ লাখের এর উপরে হতে পারে।

অবাক করা ব্যাপার মনে হচ্ছে? তাইতো? তো চলুন আপনাকে একটা উদাহরণ দেই।

আপনি কি গ্যারি ভায়নেরছুক [Gary Vaynerchuk] এর নাম শুনেছেন কখনো? ইনি বিশ্বের নাম্বার ওয়ান ডিজিটাল মার্কেটার । তাঁর ইনকাম মাসে ৭৫০,০০০ UDS ডলার। বাংলাদেশি টাকায় দাঁড়ায় ৬৯,৬৫২,২২২ টাকা প্রায়। তাহলে কেন আপনি ১০ হাজার টাকা চিন্তা করে ডিজিটাল মার্কেটিং শিখতে চান। আসলে টাকার পরিমান দেখে ভাবতে পারেন, এত টাকা আয় করা কখনই সম্ভব নয়।

gary-vaynerchuk-digital-marketing

আপনার ধারণাটা ভুল, অবশ্যই সম্ভব এবং এটা সম্ভব। শুধুমাত্র আপনি যদি ডিজিটাল মার্কেটিং এর সমস্ত ক্যাটাগরি গুলো শিখতে পারেন এবং এই ক্যাটাগরি কাজ গুলো সম্পর্কে আপনার অভিজ্ঞতা এবং দক্ষতা থাকে তাহলে আপনি ও একদিন সফল হয়ে “গ্যারি ভায়নেরছুক” এর মতো লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন ।

ডিজিটাল মার্কেটিং করে আয় করা কি সত্যি সম্ভব?

সারাবিশ্ব যে গতিতে আধুনিকায়ন হয়ে চলেছে,ধারণা করা হয় বিশাল সংখ্যক জনগোষ্ঠী ডিজিটাল মার্কেটিং সেক্টরে যুক্ত হবে এবং ইতিমধ্যে হয়ে চলেছে অনেকে।তাদের যুক্ত হওয়ার পেছনে কারণটি হচ্ছি আপনি আমি। অনলাইনে কেনা কাটা করতে আমরা সকলেই পছন্দ করি। কেনা কাটা থেকে শুরু করে বিভিন্ন কাস্টমার সাপোর্ট অথবা সেবা পেতে আমরা ইন্টারনেটে অনুসন্ধান করে থাকি। কেনা কাটা কিংবা অনুসন্ধান যাইহোক না কেন, আমাদের এই বিপুল চাহিদা পূরণের কাজটি করে থাকে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং সেই প্রতিষ্ঠানের প্রচারের ফলেই আমরা তাদের সেবা ঘড়ে বসেই নিতে পারছি।

বর্তমান সময়ের একটি চাহিদা-সম্পন্ন অনলাইন ইনকাম সোর্স এর নাম হলো ডিজিটাল মার্কেটিং। ই-বাংলা ওয়েব এর আরেকটি পোস্ট এ আমরা আলচনা করেছি ডিজিটাল মার্কেটিং এর চাহিদা নিয়ে। সেই আর্টিকেল টি পডুন নিচের লিংক থেকেঃ


ডিজিটাল মার্কেটিং এর ভবিষ্যৎ – ডিজিটাল মার্কেটিং এর চাহিদা কেমন?


ব্যক্তিভেদে আমাদের চাহিদা পূরণ বিষয় টা ক্রমাগত মুঠোফোন ভিত্তিক অর্থাৎ ডিজিটাল হয়ে গিয়েছে।আমাদের অপ্রতুল চাহিদা পূরণে কাংখিত সেবা পেতে প্রতিষ্ঠানের ঢাল হিসেবে ডিজিটাল মার্কেটিং এর প্রয়োজনীয়তা অপ্রতুল। দিন দিন ডিজিটাল মার্কেটিং এর চাহিদা বেড়েই চলেছে ঠিক যেভাবে আমাদের চাহিদা অনলাইন ভিত্তিক হয়ে চলেছে।সুতরাং বিষয় টা আমাদের বোধগম্য হয়েছে নিশ্চয়ই এতোক্ষণে যে ডিজিটাল মার্কেটিং করে আয় করা সম্ভব।

ডিজিটাল মার্কেটিং করে মাসে ইনকাম

ডিজিটাল মার্কেটিং এর কাজ করে মাসে লক্ষ টাকা ইনকাম করা সম্ভব।আবার হাজার এবং হাজারের নিচেও আয় করা সম্ভব। ডিজিটাল মার্কেটিং যেহুতু একটি অনলাইন ভিত্তিক মার্কেটিং কার্যক্রম সেক্ষেত্রে ডিজিটাল মার্কেটার হিসেবে আপনার মাসিক আয় আপনি অনলাইনে কতটুক সময় আপনার কাজের উপর দিলেন সেটার উপর নির্ভর করবে।সারাদিন মাটি খুরলে একটাকাও পাওয়া যাবে না বিষয়টি এরকম। চাইলে মাসিক ইনকাম বাড়ানো সম্ভব আবার চাইলে ইনকাম না করে বসে মাশা মাছি মারাও সম্ভব। অতএব, মাসে হাজার হাজার টাকা ইনকাম করতে হলে সঠিক গাইডলাইন অনুসরন করে ডিজিটাল মার্কেটিং শিখে নেওয়া প্রয়োজন।

ডিজিটাল মার্কেটিং শিখে কিভাবে মাসে হাজার টাকা ইনকাম করবেন?

শুরু থেকেই বলে আসছি ডিজিটাল মার্কেটিং শিখে মাসে হাজার টাকা থেকে লক্ষ লক্ষ টাকাও ইনকাম করা সম্ভব। কিভাবে ইনকাম করা সম্ভব তার মাধ্যম গুলো ও আলোচনা করেছি। এখন আসি ডিজিটাল মার্কেটিং আমরা শিখবো কিভাবে? অর্থাৎ ডিজিটাল মার্কেটিং শেখার জন্য আমাদের কি কি করতে হবে? এবং টাকা খরচ হবে কি না।প্রথমেই বলি আপনার যদি শেখার আগ্রহ এবং ধৈর্য থাকে আপনি বিনা টাকায় শিখতে পারবেন।এখন আপনাদের ডিজিটাল মার্কেটিং শেখার সাধারণ ধাপগুলো বলে দিচ্ছি:

  • ১. সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।
  • ২.ইমেইল মার্কেটিং মাধ্যম।
  • ৩.গুগল মার্কেটিং মাধ্যম। এবং
  • ৪.সার্চ ইন্জিন অপটিমাইজেশন এর মাধ্যমে।

শুরুতেই আপনাকে নির্বাচন করে নিতে হবে আপনি কোন বিষয় বা মাধ্যমে ডিজিটাল মার্কেটিং শিখতে আগ্রহী। অতঃপর সে বিষয়ে নিজেকে পারদর্শী করতে যথাযথ দক্ষতা অর্জন করা। অন্যথায় ডিজিটাল মার্কেটিং আপনার জন্য না।জেনে রাখা ভালো অনলাইনে ডিজিটাল মার্কেটিং এর চাহিদা ব্যাপক। সুতরাং ইনকাম করার জন্য কাজ খুঁজতে খুব বেশি পরিশ্রমের প্রয়োজন নেই।

একজন ডিজিটাল মার্কেটার হিসেবে আপনি মাসে কত টাকা ইনকাম করতে পারবেন? চলুন এই প্রশ্ন টা আমরা গুগল কে জিজ্ঞেস করি! দেখি গুগল আমাদের কে তার বিশাল তথ্য-ভান্ডার থেকে কি উত্তর দেয়! নিচের ছবি থেকেই দেখুন একজন ডিজিটাল মার্কেটার ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে প্রতিমাসে কেমন আয় করে থাকে!

digital-marketing-income-per-month

কি বুঝলেন? বলার অপেক্ষা রাখিনা। নিজেই একটু অনুধাবন করুন।

ডিজিটাল মার্কেটিং শিখে কিভাবে অনলাইন থেকে ইনকাম করা যায়?

ডিজিটাল মার্কেটিং এ দক্ষতা অর্জন হয়ে গেলে প্রশ্ন আসে অনলাইন সে দক্ষতা কিভাবে প্রয়োগ করে টাকা ইনকাম করবো?। অনলাইনে অনেক ফ্রিল্যান্সিং প্লাটফর্ম রয়েছে যেখানে ডিজিটাল মার্কেটিং কাজের বিপুল সমাহার। উক্ত সাইটগুলোতে নিজের ব্যক্তিগত তথ্য দিয়ে একাউন্ট খুলে আমরা কাজ করতে পারি। সেজন্য একাউন্ট খোলা থেকে ভেরিফিকেশনের যাবতীয় কাজ আপনি নিজেই করতে পারবেন। এক্ষেত্রে ইন্টারনেটে একটু ঘাটাঘাটি করলে নিম্নোক্ত ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলোতে কিভাবে একাউন্ট খুলতে হয় তা আমরা শিখে নিতে পারি।

ডিজিটাল মার্কেটিং আর অনলাইনে ইনকাম এর কথা বলছি কিন্তু সেরা কিছু অনলাইন ইনকাম এর প্লাটফর্ম এর নাম না বললে কি চলবে? অনলাইনে ডিজিটাল মার্কেটিং কাজ করে ইনকাম করার সাইটগুলো হলো:

উপরিক্ত সাইটগুলো ডিজিটাল মার্কেটারদের জন্য অসংখ্য কাজের ক্যাটাগরি বিদ্যমান। এখানে আমরা আপনাদের সুবিধার জন্য লিংক আকারে দিয়েছি যাতে আপনারা সরাসরি লিংক থেকে সাইট গুলো ভিজিট করে একাউন্ট খুলতে ও ধারনা নিতে পারেন।

এছাড়াও অনলাইন থেকে ইনকামের আরো কিছু ধাপ রয়েছে :

  • ১.নিজের ব্যবসায় ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে প্রচার করে।
  • ২.সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে গ্রাহকের পণ্য/সেবা প্রসারে ডিজিটাল মার্কেটিং জ্ঞান প্রয়োগ করেও করতে পারেন।

ডিজিটাল মার্কেটিং এ আয় কেমন?: শেষকথা

তো আজ আমরা ডিজিটাল মার্কেটিং এ আয় কেমন? অনলাইনে ইনকাম ২০২২ নিয়ে অনেক কথাই বললাম। পরিশেষে একটি কথা না বললেই নয়। আর সেটা হলো সঠিক নিয়ম আর সঠিক গাইডলাইন গুলো ফলো করে আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং স্কিল ডেভেলপমেন্ট করেন তাহলে আশা করি আপনার মতো অনেকেরই ডিজিটাল মার্কেটিং এ আয় কেমন? এই টাইপের প্রশ্ন আর দ্বিধা দূর হবে। এর পাশাপাশি ডিজিটাল মার্কেটিং শেখার পথ সহজ হবে। ভালো থাকবেন। আপনার অনলাইনে ইনকাম আর অনলাইনে ক্যারিয়ার শুরু হোক ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে। এই কামনায়…

2 Comments on “ডিজিটাল মার্কেটিং এ আয় কেমন? অনলাইনে ইনকাম ২০২২”

  1. এ লাখ লাখ টাকা কককঘকরেছে ও করেছে বলে গুল মেরে গেলেন ৷ আসলে ধারে কাছে কাউকে তো দেখলামনা যে আয় করছে ৷ যত্তসব বিক্রিবাট্টার ধান্দা ৷

  2. সঠিক নিয়ম আর সঠিক গাইডলাইন গুলো ফলো করে আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং এ স্কিল ডেভেলপমেন্ট করেন তাহলে আশা করি আপনার মতো অনেকেরই ডিজিটাল মার্কেটিং এ আয় কেমন? এই টাইপের প্রশ্ন আর দ্বিধা দূর হবে। এর পাশাপাশি ডিজিটাল মার্কেটিং শেখার পথ সহজ হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *