কিভাবে ব্লগিং শুরু করবেন? ওয়ার্ডপ্রেস নাকি ব্লগার? কোনটি সেরা?

ব্লগিং কি ও কেন?

-বাংলা ওয়েব এর আজকের আয়োজনে থাকছে ‘কিভাবে ব্লগিং শুরু করবেন? ওয়ার্ডপ্রেস নাকি ব্লগার? কোনটি দিয়ে?‘ নিয়ে বিস্তারিত। বর্তমান সময়ে অনলাইনে ইনকামের কথা বলতে সর্বপ্রথমে চলে আসে ব্লগিং [Start Blogging To Earn Money Online] এর কথা। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে অতি অল্প সময়ে বা, দ্রুত সময়ে অনলাইনে আয় করার অন্যতম উপায় হলো ব্লগিং। বলতে গেলে অনলাইনে আয় রোজগারের সেরা মাধ্যম হলো ব্লগিং

কোন এক সময় অর্থাৎ শুরুর দিকে ইয়াং জেনারেশন কেবল শখের বসেই ব্লগিং করতেন। ব্লগে আর্টিকেল লেখালেখি‘র মাধ্যমে নিজের মতামত, মননশীলতা ও সৃজনশীলতা প্রকাশ করতেন। কিন্তু সময়ের ব্যবধানে আজ ব্লগিং একটি জনপ্রিয় ও সেরা অনলাইন ইনকামের মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে।

আশাকরি এই সংক্ষিপ্ত পরিসরেই বুঝতে পেরেছেন ব্লগিং কি ও কেন? অনলাইনে ক্যারিয়ার গঠনের অন্যতম হাতিয়ার হলো ব্লগিং। এখনকার যুগে কেউ শখের বসে ব্লগিং করেন না। বলতে গেলে বর্তমানে প্রায় ৮৫ থেকে ৯০ মানুষ ব্লগিং করে অনলাইনে ইনকাম করার লক্ষ্যে।

ব্লগিং ও বাংলাদেশ – বাংলা ভাষায় ব্লগিং

সারা বিশ্বময় প্রযুক্তি উন্নয়নের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে চলছে আমাদের বাংলাদেশও। বিগত কয়েক বছরে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ব্যাপক পরিমানে বৃদ্ধি পেয়েছে আমাদের দেশে। আমার জানামতে মূলত ২০০৬ সাল থেকেই আমাদের প্রিয় মায়ের ভাষা বাংলা ভাষায় ব্লগিং এর জয়যাত্রা শুরু হয়। বাংলাদেশে ব্লগিং এর শুরুর দিকের সেরা তিনটি জনপ্রিয় বাংলা ব্লগ, যেমনঃ

এরপর বাংলাদেশে আরো অনেক বাংলা ব্লগ এর পথচলা শুরু হতে থাকে।

ব্লগিং – নেশা থেকে পেশা!

শুরুতে অনেকের ব্লগিং নেশা হিসেবে থাকলেও একটা সময়ে এসে তা পেশায় রুপ নেয়। আর তাই বললাম ‘ব্লগিং – নেশা থেকে পেশা!‘। কেননা কেবলমাত্র নিজের সৃজনশীলতা, ইচ্ছাশক্তি এবং পরিশ্রম কে কাজে লাগিয়ে ব্লগিং এর মাধ্যমে অনলাইন থেকে আয় রোজগার করা সম্ভব। বর্তমানে ডিজিটাল মার্কেটিং এর চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। স্কিল ডেভেলপমেন্ট এর মাধ্যমে নিজেকে গড়ে তুলুন একজন সফল ডিজিটাল মার্কেটার হিসেবে।

কিভাবে শুরু করবেন ব্লগিং?

এবার আসি আপনি কিভাবে ব্লগিং শুরু করবেন? এই প্রশ্নের উত্তরে। এই প্রশ্নের উত্তর জানতে গেলে এর সাথে সম্পর্কিত আরো কিছু প্রশ্ন স্বাভাবিক ভাবেই চলে আসে। যেমনঃ

  • ব্লগিং কিভাবে শুরু করা যায়?
  • ব্লগিং শুরু করতে কি কি লাগে?
  • ব্লগিং শুরু করতে কত টাকা লাগে?
  • টাকা ছাড়া কি আমি ব্লগিং শুরু করতে পারবো?
  • ব্লগিং এর জন্য কোনটি সেরা? ব্লগার নাকি ওয়ার্ডপ্রেস?
  • ব্লগার ও ওয়ার্ডপ্রেস ছাড়া ব্লগিং এর জন্য আর কোন প্লাটফর্ম কি আছে?

এ ধরনের আরো অনেক প্রশ্ন এসে যায়। তো আমরা আজ চেষ্টা করবো ব্লগিং কিভাবে শুরু করা যায়? নিয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর দিতে। তো চলুন জেনে আসি উত্তর গুলো একে একে।

how-to-start-blogging-to-earn-money-online-blogger-wordpress

ব্লগিং কিভাবে শুরু করা যায়?

ব্লগিং কিভাবে শুরু করা যায়? এর উত্তর হলো ব্লগিং শুরু করার জন্য প্রথমে আপনাকে নিশ বা, সাবজেক্ট নির্ধারন করে বা, বাছাই করে নিতে হবে। আপনি যেই বিষয়ে দক্ষ কিংবা আপনার যেই বিষয় নিয়ে ভাবতে, কাজ করতে, লেখালেখি করতে ভাল লাগে সেই বিষয় দিয়েই ব্লগিং শুরু করতে পারবেন।

আপনি কি গুগল এডসেন্স থেকে কম সময়ে আয় করার চিন্তা করছেন? তাহলে ই-বাংলা ওয়েব এই পোষ্ট টি আপনার জন্য, এখনি পড়ে নিনঃ

গুগল এডসেন্স থেকে ইনকাম – কম সময়ে ১০ হাজার টাকা আয় করুন

ব্লগিং শুরু করতে কি কি লাগে?

যারা ব্লগিং এ একেবারেই নতুন তাদের জন্য এটি একটি কমন প্রশ্ন যে ব্লগিং শুরু করতে কি কি লাগে? এই প্রশ্নের সহজ উত্তরে বলতে চাই ব্লগিং আসলে মুলত দুইভাবেই শুরু করা যায়। যেমনঃ

  • ফ্রিতে ব্লগিং শুরু করা: কোন ইনভেস্টমেন্ট ছাড়াই ব্লগিং।
  • পেইড ব্লগিং শুরু করা: ইনভেস্টমেন্ট এর মাধ্যমে ব্লগিং।

ফ্রিতে ব্লগিং কিভাবে করা যায়?

কোন প্রকার ইনভেস্টমেন্ট ছাড়াও অর্থাৎ ফ্রিতে ব্লগিং করা যায়, ফ্রিতে ব্লগিং এর মাধ্যমে অনলাইনে আয় রোজগার করা যায়। যেমনঃ আপনি যদি ব্লগার এর মাধ্যমে বা, ব্লগস্পট দিয়ে ব্লগিং শুরু করেন তাহলে কোন টাকা বা, ইনভেস্টমেন্ট লাগবে। কেননা এটা গুগল এর ফ্রি ডোমেইন এবং হোস্টিং সার্ভিস। শুধুমাত্র একটি জিমেইল একাউন্ট খুলেই আপনি ব্লগার দিয়ে ফ্রিতে ব্লগিং শুরু করতে পারবেন এবং আয় রোজগার করতে পারবেন।

পেইড ব্লগিং কি?

আপনি যদি বড় পরিসরে ব্লগিং এর মাধ্যমে অনলাইনে ইনকামের কথা ভাবেন তাহলে পেইড ব্লগিং দিয়েই শুরু করুন। এজন্য CMS হিসেবে ওয়ার্ডপ্রেস বাছাই করাই ভাল। বিগত কয়েক বছর ধরেই ব্লগিং এর জন্য সেরা প্লাটফর্ম হিসেবে ওয়ার্ডপ্রেস এর বেশ সুনাম রয়েছে। ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ব্লগিং শুরু করার চিন্তা করলে আপনাকে ডোমেইন এবং হোস্টিং এর পাশাপাশি পেইড থিম কেনা লাগতে পারে। তবে ওয়ার্ডপ্রেস এর ফ্রি থিম দিয়েও ব্লগিং শুরু করা যায়। ওয়ার্ডপ্রেস এর ফ্রি থিম দিয়েও এডসেন্স পাওয়া যায়। আর ভাল মানের কন্টেন্ট এর প্লান করতে গেলে তখন কন্টেন্ট রাইটিং এর জন্যও ইনভেস্টমেন্ট এর ব্যাপার আছে।

ব্লগিং শুরু করতে কত টাকা লাগে?

হয়তো এরই মধ্যে আপনি বুঝে গেছেন ‘ব্লগিং শুরু করতে কত টাকা লাগে?‘ তারপরেও আবার বলছি ব্লগিং শুরু করার জন্য ফ্রি ও পেইড দুইটি মাধ্যম রয়েছে। ফ্রিতে ব্লগিং শুরু করলে কোন টাকা বা, ইনভেস্টমেন্ট এর চিন্তা করা লাগেনা।

পেইড ব্লগিং জন্য আপনাকে ইনভেস্ট করতে হবে। এ ক্ষেত্রে আপনি যদি ওয়ার্ডপ্রেস এর মাধ্যমে ব্লগিং শুরু করেন তাহলে ১০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে ডোমেইন কিনতে পারবেন। আর ১০০০ থেকে ১২০০ টাকার মধ্যে হোস্টিং কিনতে পারবেন। মোটকথা সাইটের মূল ভিত্তি দাঁড় করাতে ২ হাজার টাকা খরচ হবে।

ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের কাস্টমাইজেশন যদি নিজে করতে পারেন তাহলে ভাল। কন্টেন্ট নিজে লিখতে পারলে আরো ভালো। তাহলে আর কোন এক্সট্রা টাকা খরচ হবে না।

টাকা ছাড়া কি আমি ব্লগিং শুরু করতে পারবো?

টাকা ছাড়া কি আমি ব্লগিং শুরু করতে পারবো? উত্তরঃ হ্যাঁ, টাকা ছাড়াও ফ্রিতে ব্লগিং শুরু করা যায়। ফ্রিতে ব্লগিং এর মাধ্যমে অনলাইন আয় করা সম্ভব। ফ্রিতে ব্লগস্পট এর মাধ্যমে ওয়েবসাইট বানিয়ে তা তে এডসেন্স এপ্রোভাল নিয়ে গুগল থেকে অনলাইনে ইনকাম করা এখন অনেক সহজ

ব্লগিং এর জন্য কোনটি সেরা? ব্লগার নাকি ওয়ার্ডপ্রেস?

ব্লগিং শুরু করার জন্য অর্থাৎ ব্লগিং এর জন্য কোনটি সেরা? ব্লগার নাকি ওয়ার্ডপ্রেস? এর উত্তর হলো আপনি যদি নতুন হিসেবে ব্লগিং শুরু করে থাকেন তাহলে ব্লগার বা, ব্লগস্পট দিয়েই শুরু করুন। আর যদি ইনভেস্ট করতে পারেন এবং ব্লগিং নিয়ে একটা ভাল আইডিয়া আছে তাহলে ওয়ার্ডপ্রেস দিয়েই ব্লগিং শুরু করা ভাল হবে।

ওয়ার্ডপ্রেস নাকি ব্লগস্পট! কোনটি দিয়ে ব্লগিং শুরু করবেন?

ব্লগার নাকি ওয়ার্ডপ্রেস? ব্লগিং এর জন্য কোনটি সেরা? কোনটি দিয়ে ব্লগিং করলে বা, কোন প্লাটফর্ম দিয়ে ব্লগিং শুরু করলে ভাল হবে? ওয়ার্ডপ্রেস নাকি ব্লগার? কোনটা আপনার জন্য সেরা? ব্লগস্পট ভালো হবে নাকি ওয়ার্ডপ্রেস ভাল হবে? ব্লগিং শুরু করার গাইডলাইন নিয়ে কথা বলতে গেলে এরকম আরো অনেক প্রশ্ন এসে যায়।

নতুনদের জন্য ব্লগার নাকি ওয়ার্ডপ্রেস কোনটি দিয়ে ব্লগিং শুরু করা ভাল হবে?

নতুনদের জন্য ব্লগিং শুরু করার ক্ষেত্রে কোনটি ভাল হবে? ওয়ার্ডপ্রেস নাকি ব্লগার? ওয়ার্ডপ্রেস ও ব্লগ স্পটের মধ্যে কোনটি ভালো?

ব্লগিং এ যারা নতুন, যারা ব্লগিং সম্পর্কে একটু অনলাইনে ঘাটাঘাটি করেন কিন্তু ব্লগিং নিয়ে অনেক আগ্রহী তাদের জন্য আমি বলবো ব্লগার দিয়েই ব্লগিং শুরু করুন।

কেননা ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ব্লগিং শুরু করলে দেখা যাবে ব্লগিং শুরু করতে করতেই বছর শেষ হয়ে গেলো। বছর শেষে আবার ডোমেইন রিনিউ, হোস্টিং রিনিউ নিয়ে ইনভেস্টমেন্ট এর মানে কথা টাকা খরচ এর ব্যাপার চলে আসবে। কিন্তু ব্লগার বা, ব্লগস্পট দিয়ে শুরু করলে ভাল করে শিখাও হবে আবার ব্লগার যেহেতু ফ্রি সেহেতু এখানে টাকা খরচ এর কোন ব্যাপার নেই।

কেন ব্লগার দিয়েই ব্লগিং শুরু করবেন?

ব্লগার দিয়ে ব্লগিং করার সুবিধা কি? কেন ব্লগার দিয়েই ব্লগিং শুরু করবো? এর কারণ হিসেবে তো অনেক গুলো কথাই বলছি। ডোমেইন, হোস্টিং খরচ থেকে শুরু করে আরো অনেক কথাই বলা হলো। শেষ বারে আরেকটি কথা না বললেই নয়। সেটি হলোঃ

ব্লগার দিয়ে ব্লগিং শুরু করার অন্যতম সুবিধা হলো আপনি ব্লগার দিয়ে ব্লগিং সাইট বানানোর পরে যদি মন চায় কিংবা প্রয়োজন অনুভব করেন তাহলে ব্লগার থেকে ওয়ার্ডপ্রেস এ মাইগ্রেট করতে পারবেন।

সুতরাং বুঝতেই পারছেন একজন নতুন ব্লগার হিসেবে কেন আপনি ব্লগার বা, ব্লগস্পট দিয়ে ব্লগিং শুরু করবেন।

ব্লগার ও ওয়ার্ডপ্রেস ছাড়া ব্লগিং এর জন্য আর কোন প্লাটফর্ম কি আছে?

ব্লগার ও ওয়ার্ডপ্রেস ছাড়া ব্লগিং এর জন্য আর কোন প্লাটফর্ম কি আছে? উত্তরঃ হ্যাঁ, আছে। ফ্রিতে ব্লগিং করার সেরা প্লাটফর্ম ব্লগার হলেও এর পাশাপাশি ফ্রি আরো কয়েকটি প্লাটফর্ম আছে। তবে ফ্রিতে ব্লগিং শুরু করার জন্য ব্লগস্পট ছাড়া যেটি সবচেয়ে জনপ্রিয় সেটি হলো উইক্স [WiX – Free Website Builder] । ওয়ার্ডপ্রেস এর মত এটিও আর একটি ভাল CMS প্লাটফর্ম। আমি নিজেও উইক্স দিয়ে ব্লগিং করি। আইডিয়া নিতে সেটি ভিজিট করে আসুনঃ Blog | Imam Uddin – Wix.com। দিন দিন উইক্স জনপ্রিয় হচ্ছে বেশ।

ব্লগিং এর শুরুতে ব্লগিং টপিক / বিষয়বস্তু নির্ধারন

ব্লগিং এর শুরুতে ব্লগিং টপিক / বিষয়বস্তু নির্ধারন খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি ব্যাপার। ব্লগিং টপিক / বিষয়বস্তু নির্ধারন সঠিক ভাবে করতে না পারলে আপনার প্লান ফেল যাওয়ার সম্ভাবনা থাকতে পারে।

বাংলা ভাষায় বর্তমানে চাহিদা সম্পন্ন কিছু ব্লগ এর টপিক, যেমন: মানি মেকিং অনলাইন, রেসিপি, ভ্রমণ গাইড, ফিটনেস, ফ্যাশন ইত্যাদি দিয়ে আপনি ব্লগিং শুরু করতে পারেন।

আপনি যদি কোনও নির্দিষ্ট বিষয়ে পারদর্শী বা, অভিজ্ঞ হয়ে থাকেন তাহলে এটা আপনার জন্য খুব ভাল একটি প্লাস পয়েন্ট। ব্লগিং এর টপিক বা বিষয়বস্তু বেছে নেওয়ার সবচেয়ে সহজ উপায় হলো আপনার যে বিষটি সম্পর্কে ভালো জ্ঞান আছে, যেটি দিয়ে শুরু করলে আপনি ভাল করবেন বলে আপনার আত্মবিশ্বাস আছে সেটি দিয়েই শুরু করা। চাহিদা সম্পন্ন ও ভালমানের অর্থাৎ মানসম্পন্ন কন্টেন্ট রাইটিং এর মাধ্যমে আপনার ব্লগ কে গুগলের কাছে জনপ্রিয় করে তুলতে পারবেন। গুগলের কাছে জনপ্রিয় মানেই হলো আপনি গুগল থেকেই অরগানিক ভিজিটর পাবেন। আর ব্লগে অরগানিক ভিজিটর মানেই আপনার অনলাইন ক্যারিয়ার এবং অনলাইনে আয় রোজগার এর পথ অনেকটা সুগম হয়ে গেলো।

ব্লগিং শুরু করার জন্য সেরা নিস [Niche] / টপিক কোনগুলো?

ব্লগিং এর শুরুতে আপনাকে ভাবতে হবে কোন কোন নিস নিয়ে কাজ করতে আপনি ভাল ফলাফল পাবেন? কোন কোন টপকে ব্লগিং করলে আপনি একটি ভাল ইনকাম জেনারেট করতে পারবেন? ব্লগিং শুরু করার জন্য সেরা নিস বা, টপিক কোনগুলো? [Best Blogging Niches] -এসব বিষয় নিয়ে ব্লগিং এর শুরুতেই ভেবে প্লান করলে কোনভাবেই আপনার পরিশ্রম বিফলে যাবেনা।

২০২২ সালের সেরা ১০টি জনপ্রিয় ব্লগিং টপিক

তো আসুন জেনে নিই ব্লগিং শুরু করার জন্য সেরা ও জনপ্রিয় নিস বা, টপিক কোনগুলো সেগুলোর একটি তালিকা। বর্তমান সময়ে অর্থাৎ ২০২২ সালের সেরা ১০টি ব্লগিং টপিকঃ

  • Digital Marketing
  • Health And Fitness
  • Travel Guide
  • Recipes And Food
  • Reviews Blog
  • Food Blog
  • Inspirational Blog
  • Fashion And Lifestyle
  • Personal Finance And Investing
  • Personal Development And Self-care

top-10-blogging-niche-for-adsense

উপরে উল্লেখিত সেরা ১০টি ব্লগিং নিস ছাড়াও আরো অনেক টপিক আছে। আপনার পছন্দমত এবং দক্ষতা অনুযায়ী যে কোন টপিক নিয়ে ব্লগিং শুরু করতে পারেন।

কিভাবে ব্লগিং শুরু করবেন? শেষকথা

আশাকরি আজকের এই ‘কিভাবে ব্লগিং শুরু করবেন? ওয়ার্ডপ্রেস নাকি ব্লগার? কোনটি সেরা?‘ – আর্টিকেল থেকে ভাল কিছু জানতে পেরেছেন। ব্লগিং শুরু করা নিয়ে আপনার কোন কিছু জানার থাকলে কমেন্ট করুন। কথা হবে নতুন কোন টপিকে। আপনার ব্লগিং শুরু সাফল্যময় হোক, আপনার অনলাইন ক্যারিয়ার অনলাইনে আয় রোজগার এর যাত্রা শুভ হোক এই কামনায়…

2 Comments on “কিভাবে ব্লগিং শুরু করবেন? ওয়ার্ডপ্রেস নাকি ব্লগার? কোনটি সেরা?”

  1. অসংখ্য ধন্যবাদ আপনার সুন্দর মন্তব্যের জন্য। নিয়মিত আপডেট পেতে ই-বাংলা ওয়েব ভিজিট করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *